অন্নপূর্ণা বেস ক্যাম্প ট্রেক Annapurna base camp trek

৩য় দিন – ঘান্দ্রুক ( ২০২০ মিঃ ) থেকে চমরং ( ২১৭০ মিঃ ) ঘান্দ্রুক শুরুতে অনেকে দেখে ভাবতে পারে যে আজকে অনেক আরামের দিন, ২০২০ থেকে মাত্র ২১৭০ মিঃ উপরে উঠতে হবে। আমিও তাই ভেবেছিলাম। কিন্তু যখন চন্দ্র দা বললেন যে এই রাস্তা যেতে ৭ ঘণ্টা লাগবে, সব আনন্দ উড়ে গেল। সবচেয়ে কষ্টের ব্যাপার […]

Read More →

৪র্থ দিন – চমরং ( ২১৭০ মিঃ ) থেকে হিমালয়া হোটেল ( ২৯০০ মিঃ ) চমরং চমরং থেকে আমরা ৭.৩০ এর মধ্যে বের হয়ে গেলাম। অন্নপূর্ণা ট্র্যাকের সবচেয়ে বড় গ্রাম এই চমরং। প্রচুর পরিমাণ লজ আছে এখানে। বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ট্র্যাক শুরু করা সবাই এসে চমরং এ মিলিত হয়, এখান থেকে অন্নপূর্ণার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু […]

Read More →
Annapurna base camp অন্নপূর্ণা বেস ক্যাম্প

হিমালয়া হোটেল সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি আমার গায়ে জ্বর জ্বর ভাব নেই, শরীরও ঝর ঝরে লাগছে। আত্মবিশ্বাস আবার লাফ দিয়ে তুঙ্গে উঠে গেল। তবে তাই বলে পায়ের ব্যথা যে নেই তা না। ডাইনিং এ দেখলাম জিম সহ আরও বেশ কয়েকটি দেশের সবাই একসাথে নাস্তা করছে। সবাই অলরেডি তৈরি ট্রেক শুরুর জন্য। আমরা তাড়াতাড়ি মুখে […]

Read More →
Annapurna Base Camp

অন্নপূর্ণা বেস ক্যাম্প( ৪১৩০ মিঃ ) ‘ভয়ঙ্কর সুন্দর’ শব্দটা আমরা ব্যাবহার করি যখন কোনও জিনিসের সৌন্দর্য আমাদের কল্পনার মাত্রাকেও ছাড়িয়ে যায়। এইদিন সকালে বাহিরের ভিউকে বর্ণনা করার জন্য এর চেয়ে ভালো কোনও শব্দ আমার জানা নাই। দূরে মেঘের ফাঁকে অন্নপূর্ণা ১ এর পিক এর একটা অংশ দেখা যাচ্ছে, তার উপর জমে থাকা বরফে রোদ পড়ে […]

Read More →

দোভান থেকে ঝিনু ডাণ্ডা চমরং ছোটবেলা স্কুলের বাংলা বইতে সৈয়দ মুজতবা আলী’র “গ্র্যাবোভোবাসীদের রস-রসিকতা” নামে একটা গল্পে প্রথম শুনি ‘উষ্ণ প্রসবন” শব্দটা। সেখানে লেখা ছিল গ্র্যাবোভোবাসীরা ঠাণ্ডায় উষ্ণ প্রসবণের পানিতে গোসল করত। আমরা সবাই ভাবতাম এইটার মানে বুঝি ‘গরম মূত্র’ । স্কুলের স্যার রাও ব্যাপারটা ঠিক মতো বুঝায় দেয় নাই। বহুদিন পর্যন্ত আমার এই ধারণা […]

Read More →
ঝিনু ডাণ্ডা Jhinu Nepal

পোখারা কিউমি ও সিউই আজ আমাদের হিমালয়ে শেষ দিন, ৩ ঘণ্টা হেঁটে আমাদের যেতে হবে কিউমি, সেখান থেকে আরও ২ ঘণ্টা দূরে সিউই। সিউই থেকে জীপ আর লোকাল বাস দুইটাই পাওয়া যায় পোখারা যাওয়ার জন্য। জীপের ভারা অত্যধিক বেশি, কিন্তু লোকাল বাসের কোনও টাইমটেবিল নাই। আমাদের হাঁতে টাকা শেষ হতে চলায় ঠিক করলাম বাস যতক্ষণ […]

Read More →
peace pagoda pokhara পিস প্যাগোডা পোখারা

পোখারা থেকে কাঠমান্ডু  সকালে ভোরে উঠে হোটেলের বিল পে করে ট্যাক্সি নিয়ে চলে গেলাম বাস স্ট্যান্ড। আমি আমার জীবনে এতো নীরব বাস স্ট্যান্ড কখনো দেখি নাই। আমাদের দেশে তো বাস স্ট্যান্ড এ হর্ন, লোকজনের চিল্লা চিল্লি আর ডাকাডাকি তে কান পাতা দায়। এখানে দেখলাম চুপ চাপ ২০ ২৫ টা বাস দাঁড়ায় আছে, যে যার বাসে […]

Read More →
পুনাখা সাসপেনশন ব্রিজ

থিম্পু থেকে পুনাখা থিম্পু থিম্পু তে ট্যাক্সি থেকে নেমে আমরা বাংলা স্টাইলে রাস্তা পার হওয়া শুরু করলাম। সাথে সাথে বাঁশি মারতে মারতে এক পুলিশ দৌড়ায় আসল। বলল আমরা যাতে জেব্রা ক্রসিং দিয়ে রাস্তা পার হই। শুনে পুরা টাস্কি খেয়ে গেলাম। কারণ রাস্তা মুটামুটি খালি। আর জেব্রা ক্রসিং নামে এক জিনিস ছোট বেলায় বইতে পড়েছিলাম, এইটা […]

Read More →